মেসির গোলে পিএসজির ১১তম লিগ শিরোপা জয়


টানা দ্বিতীয় ও সব মিলিয়ে একাদশ লিগ ওয়ান শিরোপা ঘরে তুলল প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ে (পিএসজি)। শিরোপা নিশ্চিত করতে পিএসজির দরকার ছিল একটি পয়েন্ট। তাই স্ত্রাসবুর্গের বিপক্ষে ড্র করলেই চলত। শেষ পর্যন্ত তা-ই হলো। স্ত্রাসবুর্গের মাঠে ড্র করে শেষ রাউন্ডের আগেই লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলল মেসির দল। শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখার পাশাপাশি লিগ ওয়ানে রেকর্ডও গড়লো পিএসজি।

শনিবার (২৭ মে) রাতে স্ট্রাসবুর্গের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে পিএসজি। ৫৯ মিনিটে লিওনেল মেসির গোলে এগিয়ে যায় পিএসজি। এরপর ৭৯ মিনিটে কেভিন গামেইরোর গোলে ম্যাচে সমতায় ফেরে স্বাগতিকরা।

ম্যাচের ৬৬ শতাংশ সময় নিজেদের দখলে বল থাকলেও সেভাবে সুযোগ সৃষ্টি করতে পারেনি পিএসজি। তবে মাত্র ৩৪ শতাংশ সময় বল পায়ে পেয়েই গোলের লক্ষ্য বরাবর ৫ বার শট নিয়েছিল স্ত্রাসবুর্গ। যদিও তারা মাত্র একবারই সফল হতে পেরেছে।

এদিন, ম্যাচের দশম মিনিটে ম্যাচের প্রথম উল্লেখযোগ্য সুযোগ পান কিলিয়ান এমবাপে। তবে জায়গা ছেড়ে বেরিয়ে এসে তার পা থেকে বল কেড়ে নিয়ে কোনো বিপদ হতে দেননি স্ত্রাসবুর্গ গোলরক্ষক মাটস সেলস।

বিপরীতে ভালোই পাল্লা দিয়েছে স্ত্রাসবুর্গ। ১৫তম মিনিটে বিতিশিয়াবুর দুর্বল ব‍্যাকপাসে দারুণ এক সুযোগ পেয়ে যায় স্ত্রাসবুর্গ। গোলের জন‍্য শট নেন হাবিব দিয়ালো। তবে গোললাইন থেকে বল ফিরিয়ে পিএসজির ত্রাতা বনে যান সের্হিও রামোস। ৩৮তম মিনিটে দিয়ালোর আরো একটি শট বৃথা যায় গোল পোস্টে লেগে। আক্রমণ প্রতি আক্রমণে গোল পায়নি কোন পক্ষই। তাই গোলশূণ্য থেকে বিরতিতে যায় দু’দল।

মেসির গোল উদযাপন । ছবি: সংগৃহীত

বিরতি থেকে ফিরে দ্বিতীয়ার্ধেও খুব বেশি সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না পিএসজি। আবার আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলা স্ত্রাসবুর্গও পারছিল না পিএসজির জমাটরক্ষণ ভাঙতে। শেষ পর্যন্ত ৫৯তম মিনিটে গোলমুখ খোলেন লিওনেল মেসি। এমবাপের কাছ থেকে বল পেয়ে ঠান্ডা মাথার শটে জাল খুঁজে নেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। চলতি আসরে এটি তার ১৬তম গোল।

এদিকে, পিএসজি শিবিরে একের পর এক আক্রমণ করে যাওয়া স্ত্রাসবুর্গ সমতায় ফেরেন ৭৯তম মিনিটে। মর্গান সানসনের শট দোনারুম্মা ঝাঁপিয়ে ঠেকালেও কাছে দাঁড়িয়ে থাকা পিএসজিরই ঘরের ছেলে কেভিন গামেইরো সহজেই বল জালে পাঠান। পিএসজির শিরোপা নিশ্চিত করার পথে অবশ্য সেটি কোনো বাধা হয়নি। ম্যাচ থেকে পাওয়া এক পয়েন্টই পিএসজিকে এনে দিয়েছে আরেকটি লিগ শিরোপা।

এই জয়ের পর ৩৭ ম্যাচ শেষে পিএসজির পয়েন্ট এখন ৮৫। দ্বিতীয় স্থানে থাকা লাঁসের পয়েন্ট সমান ম্যাচে ৮১। হাতে থাকা এক ম্যাচ দিয়ে পিএসজিকে আর ছোঁয়া সম্ভব হবে না লাঁসের। তাই এক ম্যাচ হাতে রেখেই লিগ জয় নিশ্চিত করল ক্রিস্তফ গালতিয়েরের দল।

ক্লেমর ফুতের বিপক্ষে ঘরের মাঠে শেষ ম্যাচের পর শিরোপা উৎসব করবে পিএসজি।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরআই





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top