ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনা: বাংলাদেশিদের জন্য হটলাইন নম্বর চালু


ভারতের ওডিশায় দুর্ঘটনাকবলিত ট্রেনটিতে বাংলাদেশি যাত্রী থাকতে পারে। চিকিৎসার জন্য অনেক বাংলাদেশি এই ট্রেনে কলকাতা থেকে চেন্নাই যাতায়াত করেন। দুর্ঘটনায় কোনো বাংলাদেশি থাকলে তাদের তথ্য জানতে হটলাইন (+৯১৯০৩৮৩৫৩৫৩৩ হোয়াটসঅ্যাপ) নম্বর দিয়েছে কলকাতার বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশন।

শুক্রবার রাতে উপ-হাইকমিশন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই হটলাইনের কথা জানিয়েছে।

ভারতের ওড়িশায় ভয়াবহ এই ট্রেন দুর্ঘটনায় অন্তত ৫০ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন চার শতাধিক মানুষ। দুর্ঘটনার শিকার একটি ট্রেন শালিমার-চেন্নাই করমান্ডেল এক্সপ্রেস। এটি কলকাতা থেকে চেন্নাই যাচ্ছিল।

উপহাইকমিশনের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাধারণ বাংলাদেশিরা চিকিৎসার জন্য ওই ট্রেনটিতে যাতায়াত করেন। তাই দুর্ঘটনার পর ভারতের রেল কর্তৃপক্ষ ও ওড়িশা রাজ্য সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছে কলকাতার বাংলাদেশ উপহাইকমিশন।

বালাশোরের একজন শীর্ষ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, যাত্রীবাহী দুটি ট্রেন লাইনচ্যুত এবং একটি মালবাহী ট্রেনের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনায় নিহত হয়েছে অন্তত ৫০ জন। শত শত মানুষ এখনো দুর্ঘটনাকবলিত বগিগুলোতে আটকে রয়েছে।

ওড়িশা রাজ্যের ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক সুধাংশু সারঙ্গি জানিয়েছেন, এ ঘটনায় অন্তত ৪০০ জন আহত হয়েছে।

আরও পড়ুন: কলকাতা থেকে চেন্নাইগামী ট্রেন দুর্ঘটনা: নিহত অন্তত ৫০

এদিকে ওড়িশার একজন শীর্ষ কর্মকর্তা প্রদীপ জেনা সাংবাদিকদের বলেছেন, হতাহত রয়েছে। তবে উদ্ধার তৎপরতায় ব্যস্ত থাকায় আমরা এখনো গুনে দেখিনি। এ কারণে নিহতের সঠিক সংখ্যা বলা যাচ্ছে না।

তিনি আরও বলেছেন, তবে যেহেতু মোট তিনটি ট্রেন দুর্ঘটনায় পড়েছে, দুটি যাত্রীবাহী ট্রেন। সে কারণে অনেক হতাহত হবে। আমরা শুধু সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করতে পারি, হতাহত যাতে কম হয়। সারারাত উদ্ধার অভিযান চলবে।

এদিকে এ ঘটনায় যাত্রা বাতিল করা হয়েছে কলকাতা থেকে বিভিন্ন রুটে চলা বেশ কিছু ট্রেনের। কিছু ট্রেন অন্য পথে চালানো হচ্ছে। কয়েকটি ট্রেনের যাত্রা সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে। কিন্তু সে খবর আগে থেকে না জানার কারণে যাত্রীরা হাওড়া স্টেশনে এসে পৌঁছাচ্ছেন। এছাড়া স্টেশনে ভিড় করছেন দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্রেনগুলোর যাত্রীদের স্বজনরা।

এমএইচআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top