বিপিও সামিট ২০২৩ থেকে এক হাজার কর্মসংস্থানের উদ্যোগ


দেশের বিপিও বা আউটসোর্সিং শিল্পের প্রসারের জন্য মে থেকে জুলাই মাসে দেশ উদযাপিত হবে বিপিও সামিট বাংলাদেশ ২০২৩। বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কনটাক্ট সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের (বাক্কো) উদ্যোগে ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বিজনেস প্রোমোশন কাউন্সিলের সহযোগিতায় এ সামিট অনুষ্ঠিত হবে।

রবিবার (২১ মে) রাজধানীতে সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করে এই তথ্য জানায় বাক্কো। এ সময় বাক্কোর কার্যনির্বাহী কমিটির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘বিপিও সামিট বাংলাদেশ ২০২৩’-এর শুভসূচনার ঘোষণা করা হয়।

বাক্কোর সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ হোসেন বলেন, বিপিও সামিটের মধ্য দিয়ে এবারে অন্তত এক হাজার মেধাবী তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের উদ্যোগ নিয়েছি আমরা। থাকছে বিভাগীয় পর্যায়ে ক্যারিয়ার কাউন্সেলিং সেশন ও চাকরি মেলার আয়োজন।

বাক্কো সহসভাপতি তানভীর ইব্রাহীম বলেন, বাংলাদেশ ২০৩৫ সালের মধ্যে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ও সর্বাধিক শক্তিশালী অর্থনীতিসমৃদ্ধ দেশগুলোর মধ্যে ২৫তম অবস্থানে চলে আসবে এবং ট্রিলিয়ন ডলার অর্থনীতির মাইলফলক স্পর্শ করবে। আর এ অবস্থান অর্জনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাত রাখবে অন্যতম ভূমিকা।

সংবাদ সম্মেলনে বিগত বিপিও সামিটসগুলোর কার্যক্রম ও অর্জনের প্রতি আলোকপাত করা হয়। বাক্কো কার্যনির্বাহী কমিটি থেকে উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. তানজিরুল বাসার, অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ আমিনুল হক; পরিচালক আবু দাউদ খান, আহমেদুল ইসলাম বাবু প্রমুখ।

শুধু রাজধানীতেই নয়, এবারই প্রথমবারের মতো ‘বিপিও সামিট বাংলাদেশ’ আয়োজিত হচ্ছে বিভাগীয় পর্যায়েও। আগামী ২৩ মে রাজশাহী বিভাগে ক্যারিয়ার ক্যাম্পেইনের মধ্য দিয়ে শুরু হবে যাত্রা। বিভাগীয় পর্যায়ের বর্ণাঢ্য আয়োজনের অংশ হিসেবে থাকছে ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাস অ্যাকটিভেশন, তরুণ প্রজন্মের জন্য চাকরি মেলা, ক্যারিয়ার কাউন্সেলিং সেশন, স্থানীয় অংশীজনদের নিয়ে আয়োজিত পলিসি ডিসকাশন ইত্যাদি।

সাতটি বিভাগে পর্যায়ক্রমে আলাদাভাবে বিভাগীয় বিপিও সামিট উদযাপনের পর কেন্দ্রীয় পর্যায়ে চূড়ান্তভাবে আয়োজিত হবে কেন্দ্রীয় বিপিও সামিট।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top