বড়াইগ্রামে গলায় ছুরি মেরে ভ্যান ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৩ 


প্রতীকী ছবি নাটোরের বড়াইগ্রামে গলায় ছুরি মেরে ব্যাটারিচালিত অটোভ্যান ছিনতাইয়ের ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় ছিনতাই হওয়া ভ্যানটিও উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল শনিবার উপজেলা ও লালপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। 

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন বাগাতিপাড়া উপজেলার মৃত আইয়ুব আলীর ছেলে আশরাফুল হক আবু (৩২), পেরাবাড়িয়া গ্রামের আল আমিনের ছেলে নাসিম হোসেন (১৬) ও বড়াইগ্রামের কাটাশকোল গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে সুরুজ আলী (১৯)। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরিফ আল রাজিব বলেন, ঘটনার পর থেকে ছিনতাইকারীদের গ্রেপ্তারে মাঠে নামে পুলিশ। তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে ছিনতাইয়ে জড়িত তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ব্যাটারিচালিত অটোভ্যান ও ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত চাকু উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার আসামিরা ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। 

এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে নাটোরের বড়াইগ্রামে ব্যাটারিচালিত অটো ভ্যানচালককে গলা কেটে ভ্যান ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার রামাগাড়ী বাঁশবাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ভ্যানচালকের নাম আবু তালেব (৪৫)। তিনি লালপুর উপজেলার ওয়ালিয়া গ্রামের মৃত আবু বক্করের ছেলে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার তালেবের স্ত্রী মাবিয়া বেগম বাদী হয়ে বড়াইগ্রাম থানায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলা করেন।

মাবিয়া বেগম বলেন, রাত ৮টার দিকে চারজন যাত্রী নিয়ে লালপুর উপজেলার ওয়ালিয়া বাজার থেকে বড়াইগ্রামের রামাগাড়ী বাজারের উদ্দেশে রওনা দেন তাঁর স্বামী। রামাগাড়ী সড়কে পৌঁছানোর পর ভ্যানে থাকা ব্যক্তিরা আবু তালেবকে গলায় ধারালো কিছু দিয়ে আঘাত করে ভ্যান নিয়ে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করেন। 

স্থানীয় ওই হাসপাতালের চিকিৎসক সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী জানান, তাঁর গলায় ধারালো কিছু দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top