দুদকের মামলায় বিএনপি নেতা আসলাম চৌধুরীর বিচার শুরু


বিএনপি নেতা আসলাম চৌধুরী। ফাইল ছবি  নোটিশ পেয়ে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) সম্পদের বিবরণী জমা না দেওয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোহাম্মদ আসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। আজ বুধবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪-এর বিচারক সৈয়দ আরাফাত রহমান অভিযোগ গঠন করেন।

অভিযোগ গঠনের সময় আসলাম চৌধুরীকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। তিনি দোষী না নির্দোষ আদালতের এমন প্রশ্নের জবাবে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন। পরে আদালত আগামী ১০ জুলাই সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য দিন ধার্য করেন।

আজ সকালে আসলাম চৌধুরীর আইনজীবী তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ তাঁকে মামলা থেকে অব্যাহতির আবেদন করেন। আদালত ওই আবেদন নামঞ্জুর করেন। এর আগে গত ২৮ মার্চ ঢাকা মহানগর সিনিয়র বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মো. আছাদুজ্জামান আসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নেন।

গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর দুদকের উপপরিচালক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেন। ২০১৯ সালের ২৪ ডিসেম্বর দুদকের উপপরিচালক মো. নাসির উদ্দিন বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে ঢাকার সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১-এ মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার দক্ষিণ ভাটিয়ারির বাসিন্দা আসলাম চৌধুরী ও তাঁর স্ত্রী জমিলা নাজনীন মাওলার বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়ের বাইরে কয়েক শ’ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তদন্ত শুরু করে দুদক। 

২০১৯ সালের ১৩ মে দুর্নীতি দমন কমিশনের উপপরিচালক ঋত্বিক সাহা চট্টগ্রাম কারাগার কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে একটি নোটিশ জারি করে কারাবন্দী আসলাম চৌধুরীকে ৭ দিনের মধ্যে তার সম্পদের বিবরণী জমা দিতে বলে। এরপর ওই বছরের ২৩ জুন আসলাম চৌধুরীকে নোটিশ দেয় চট্টগ্রাম কারাগার কর্তৃপক্ষ।

ওই বছরের ১ জুলাই আসলাম চৌধুরী সম্পদের হিসাব দুদকে জমা দিতে ৩ মাস সময় চেয়েছিলেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দুদক তাকে সম্পদ বিবরণী দাখিলের জন্য মোট ৩৬ দিন সময় দেয়।

আসলাম চৌধুরী ২০১৯ সালের ১৯ আগস্ট আবার এই বিষয়ে আরও ৩ মাস সময় চেয়ে আরেকটি আবেদন জমা দেন।

তবে ওই বছরের ১৫ অক্টোবর দুদক কারা কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আসলাম চৌধুরীকে জানায়, আর কোনো সময় বাড়ানো হবে না এবং বেশ কয়েকবার সময় বাড়ানোর আবেদন করা সত্ত্বেও তিনি নির্ধারিত সময়ে নথি জমা না দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top