দলীয় নেতা-কর্মীরা গাদ্দারি করেছে: আজমত উল্লা


গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কথা বলছেন আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী আজমত উল্লা খান। ফাইল ছবি গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হারের পর দলীয় নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে বিশ্বাসঘাতকতার অভিযোগ তুলেছেন আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী আজমত উল্লা খান। বিষয়টি নিয়ে দল ব্যবস্থা নেবে বলে আশাপ্রকাশ করেছেন তিনি।

গতকালের নির্বাচনে ১৬ হাজার ১৯৭ ভোটে সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের মা জায়েদা খাতুনের কাছে পরাজিত হয়েছেন নৌকার প্রার্থী। আজ শুক্রবার দিনভর নিশ্চুপ থাকার পর বিকেল ৪টার দিকে টঙ্গীর বাসভবনে গণমাধ্যমকর্মীদের সামনে তিনি কথা বলেন।

আজমত বলেন, ‘কিছু ত্রুটি ছিল ইভিএমের কারণে। অনেক লোক ভোট দিতে পারেনি। যা-ই হোক, ফলাফল যা হয়েছে আমি মেনে নিয়েছি। যিনি বিজয়ী হয়েছেন তাঁকে অভিনন্দন জানাই।’

জনগণের দেওয়া রায় মেনে নিলেও নিজের হার হজম করতে পারছেন না আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ এই নেতা ও পুরোনো জনপ্রতিনিধি। 

তিনি বলেন, ‘আমি নির্বাচনের রায় মেনে নিয়েছি। কিছু প্রোপাগান্ডা ছিল।’ ‘দলীয় নেতা-কর্মীরা আমার সঙ্গে গাদ্দারি করেছে। নিশ্চয়ই দলীয় নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে দল ব্যবস্থা নেবে।’

নির্বাচনে বেসরকারিভাবে জয়ী প্রার্থী জায়েদাকে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত বলে ইঙ্গিত দিয়ে আজমত বলেন, ‘এখন তিনি কী ধরনের সহযোগিতা চাইবেন, সেটা তাঁর ব্যাপার। যেহেতু দলীয় প্রার্থী ছিলাম, তাই কিছু জিনিস চুলচেরা বিশ্লেষণ ও পর্যালোচনা করে আমি আমার মতামত দেব।’

অসুস্থতার কথা জানিয়ে বক্তব্য সংক্ষেপ করে আজমত বলেন, তিনি পরে বিস্তারিত জানাবেন।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top