তিন টেস্টের ফাইনাল চান রোহিত, ইংল্যান্ডে খেলা নিয়েও তুললেন প্রশ্ন


বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ফের হার। এই টুর্নামেন্টে পরপর দুই আসরে ফাইনালে উঠলেও শিরোপা অধরাই থেকে গেলো ভারতের। আজ টেস্টের পঞ্চম ও শেষ দিনে আড়াই ঘণ্টার মধ্যে ভারতের ৭ উইকেট তুলে নিয়ে ২০৯ রানে বড় জয় ছিনিয়ে নেয় অস্ট্রেলিয়া।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে আট উইকেটে হেরেছিল ভারত। সেই খেলা হয়েছিল ইংল্যান্ডের সাউদাম্পটনে, এবার ইংল্যান্ডের ওভালে। এমনকি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পরের আসরের ফাইনালও হবে ইংল্যান্ডে, লর্ডসে।

হারের পর রোহিত শর্মা প্রশ্ন তুললেন, কেন জুনেই ফাইনাল হতে হবে? কেন ইংল্যান্ডেই হবে খেলা? ভারতীয় অধিনায়ক বলেন, ‘জুন মাসেই শুধু বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলতে হবে। এর কোনও মানেই নেই। আর এটি শুধুমাত্র ইংল্যান্ডে নয়, বিশ্বের যে কোনও জায়গায় খেলা যেতে পারে।’

সেইসঙ্গে ফাইনাল তিন টেস্টের হওয়া উচিত, এমন দাবিও রোহিতের। তার কথা, ‘গত দু’বছর ধরে অনেক পরিশ্রম করে আমরা ফাইনালে উঠেছিলাম। কিন্তু মাত্র একটা ম্যাচেই ফাইনালে খেতাবের ফয়সালা হয়ে গেল। আমি চাইব, ফাইনাল অন্তত তিন ম্যাচের হোক। পরের বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপেই ফাইনাল তিন ম্যাচের করা হলে, সেটাই চ্যাম্পিয়ন নির্ধারণের ক্ষেত্রে একেবারে সঠিক হবে।’

রোহিত অবশ্য স্বীকার করেছেন, তারা ভালো ব্যাটিং করতে পারেননি। তিনি বলেন, ‘প্রথম ইনিংসে আমরা মোটেও ভালো ব্যাট করিনি। সেটা বড় ফারাক গড়ে দিলো। আমরা লক্ষ্যে টার্গেটে পৌঁছতে চেয়েছিলাম ঠিকই, তবে খারাপ শট খেলে আউট হয়েছি। ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো পিচ ছিল। পাঁচ দিনই উইকেট ব্যাটিংয়ের উপযুক্ত ছিল। কিন্তু আমরা সেটা ব্যবহার করতে পারিনি।’

টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত কি ঠিক ছিল? এই জায়গায়ও আত্মপক্ষসমর্থন করলেন রোহিত। ভারতীয় দলপতি বেলেন, ‘আমি ভেবেছিলাম টস জিতে আমরা ভালো শুরু করেছি, সেই পরিস্থিতিতে ওদের (অস্ট্রেলিয়াকে) ব্যাট করতে পাঠানোটা ঠিক ছিল। আমরা প্রথম সেশনে ভালো বোলিং করেছি এবং তার পরে আমরা যে ভাবে বোলিং করেছি, সেটা সত্যিই হতাশার।’

সঙ্গে তিনি যোগ করেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটারদের কৃতিত্ব দিতে হবে। হেড এবং স্টিভ স্মিথ সত্যিই ভালো খেলেছে। ওরা আমাদের লড়াই কঠিন করে দিয়েছিল। আমরা জানতাম যে প্রত্যাবর্তন করা সব সময়েই কঠিন, কিন্তু আমরা ভালো চেষ্টা করেছি। আমরা শেষ পর্যন্ত লড়াই করেছি। আমরা এই চার বছর কঠোর পরিশ্রম করেছি। সত্যি বলতে, দু’টি ফাইনাল খেলা আমাদের জন্য একটি বড় কৃতিত্বের। কিন্তু আমাদের আরও এগিয়ে যেতে হবে। আমরা মাথা উঁচু করে পরের চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য লড়ব।’

এআরবি/এমএমআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top