জমির বিরোধে প্রতিবেশীকে হত্যা, ২ জনের মৃত্যুদণ্ড


প্রায় ১৩ বছর আগে চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে জমি-জমার বিরোধের জেরে প্রতিবেশীকে হত্যার দায়ে দুইজনকে মৃত্যুদণ্ড ও একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার চট্টগ্রামের দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মুহাম্মদ আমিরুল ইসলাম এ আদেশ দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, মোহাম্মদ জাবেদ ও হাবিজ আহমদ। যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম মিন্টু মিয়া।

মামলার নথি সূত্রে জানা গেছে, ২০১০ সালের ৫ নভেম্বর সকালে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলার খোয়াজনগর এলাকায় জমি দখল নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। একপর্যায়ে দখলে বাধা দেয়ায় জমির মালিক আব্দুস সবুরকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। সবুরের বড় ভাইসহ পরিবারের আরও কয়েকজন সদস্যকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করা হয়।

এ ঘটনায় সবুরের স্ত্রী বাদী হয়ে ১০ জনকে আসামি করে কর্ণফুলী থানায় মামলা করেন। কর্ণফুলী থানার তৎকালীন এসআই উৎপল বড়ুয়া ২০১১ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর ৯ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ২০১৫ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি ফরিদ আহমদ নামে এক আসামি মারা যান। ২০১৫ সালের ৮ এপ্রিল ফরিদকে বাদ দিয়ে আট আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। বিচার চলাকালে ২০১৬ সালের ১৪ নভেম্বর ছবির আহমদ নামে আরও এক আসামির মৃত্যু হয়।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনাকারী অতিরিক্ত মহানগর পিপি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা মাহমুদ বলেন, জমির বিরোধে প্রতিবেশীকে হত্যার ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় ১১ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে দুই আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় চারজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তিনজনকে সাজামূলে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top